বসুন্ধরা কিংসের বিপক্ষে এএফসি কাপের ম্যাচ খেলতে ঢাকায় এসেছিল মালদ্বীপের ক্লাব টিসি স্পোর্টস। এরপর এখনো বাড়ি ফিরে যেতে পারেনি তারা।

করোনাভাইরাসের প্রচণ্ড প্রকোপের কারণে বিশ্বের কয়েকটি দেশে ভ্রমণের উপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে মালদ্বীপ। যেখানে চীন, দক্ষিণ কোরিয়া, ইতালির সাথে রয়েছে বাংলাদেশের নামও। তাদের এই সিদ্ধান্তের ভুক্তভোগী হলো দেশটির ফুটবল ক্লাব টিসি স্পোর্টস। বাংলাদেশি ক্লাব বসুন্ধরা কিংসের বিপক্ষে এএফসি কাপের ম্যাচ খেলতে ঢাকায় আসার পরই মালদ্বীপ সরকারের নিষেধাজ্ঞার খবর পায় ক্লাবটি। 

গত বুধবার আর্জেন্টাইন তারকা হার্নান বার্কোসের তান্ডবে বসুন্ধরা কিংসের কাছে ৫-১ গোলে উড়ে যায় টিসি স্পোর্টস। বিশাল হারের স্বাদ নিয়ে পরের দিনই ঢাকা ছাড়ে ক্লাবটি। ঢাকা ছাড়ার পর তাদের বহন করা বিমানটি কলম্বোতে ভ্রমণ বিরতি দিয়ে মালদ্বীপ পৌঁছানোর কথা। কিন্তু মালদ্বীপে যাওয়ার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা থাকায় আপাতত কলম্বোতেই থাকতে হচ্ছে তাদেরকে। বৃহস্পতিবারে দলের সাথে ঢাকা ছাড়তে পারেনি দলটির তিন বিদেশী ফুটবলার। পাকিস্তান, মিশর ও সেন্ট ভিনসেন্ট থেকে আসা ওই ৩ ফুটবলারের আজই দলের সঙ্গে কলম্বোতে যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে। 

কলম্বোতে থাকলেও টিসি স্পোর্টসের ফুটবলারদের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হচ্ছে না। দলের কোনো খেলোয়াড়ের স্বাস্থ্য ঝুঁকিও নেই। তবে ১৪ দিনের আগে কোনোভাবেই মালদ্বীপে ফিরে যাওয়ার সুযোগ নেই তাদের। তাই এ সময়ে কলম্বোতেই থাকতে হচ্ছে ক্লাবের সাথে বাংলাদেশ সফরে আসা সকল সদস্যকে। বিষয়গুলো নিশ্চিত করেছে টিসি স্পোর্টস কর্তৃপক্ষ। 

তথ্যসূত্র- প্রথম আলো


শেয়ারঃ


এই বিভাগের আরও লেখা