বিশ্বজুড়ে চলমান করোনাভাইরাসের ভয়াল থাবার শিকার হয়েছেন ফুটবল ইতিহাসের অন্যতম সেরা ডিফেন্ডার পাওলো মালদিনি ও তার ছেলে দানিয়েল মালদিনি।

ইতালিতে করোনার প্রকোপ এতটাই ভয়াবহ যে মৃত্যুর মিছিলে তারা ছাড়িয়ে গেছে উৎপত্তিস্থল চীনকেও। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৫৩৫৭৮ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। যার মধ্যে মৃতের সংখ্যা ৪৮২৫ জন। এই মরণঘাতী ভাইরাস থেকে রক্ষা পাচ্ছেন না ফুটবলাররাও। গতকাল রাতে জুভেন্টাসের আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড পাওলো দিবালা নিশ্চিত করেছেন, তিনি এবং তার বান্ধবী কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন। তার কয়েক ঘন্টা পরে খবর আসে, ফুটবল ইতিহাসের অন্যতম সেরা ডিফেন্ডার পাওলো মালদিনি এবং তার ছেলে দানিয়েল মালদিনি করোনাভাইরাস টেস্টে পজিটিভ হয়েছেন। 

পাওলো মালদিনি বর্তমানে ইতালিয়ান ক্লাব এসি মিলানের ট্যাকনিক্যাল ডিরেক্টর হিসেবে রয়েছেন। তার ছেলে দানিয়েল মালদিনি খেলছেন ক্লাবটির যুবদলে। তাদের দুইজনের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করে এসি মিলান কর্তৃপক্ষ বিবৃতি দিয়েছে, "ক্লাবের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর পাওলো মালদিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এক ব্যক্তির সংস্পর্শে এসেছিলেন। এখন তাঁর শরীরেও ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার লক্ষণ দেখা দিচ্ছে। টেস্টে তিনি পজিটিভ হয়েছেন। তাঁর ছেলে এবং এসি মিলান যুব দলের ফরোয়ার্ড দানিয়েল মালদিনিও টেস্টে পজিটিভ। পাওলো এবং তাঁর ছেলে এর মধ্যেই দুই সপ্তাহ বাসায় একা কাটিয়েছেন। স্বাস্থ্য বিভাগের পরামর্শমতে, পুরো সেরে না ওঠা পর্যন্ত তাঁরা এখন কোয়ারেন্টিনে থাকবেন।"

৫১ বছর বয়সী পাওলো মালদিনি ২০১৮ সালে যোগ দিয়েছিলেন এসি মিলানের ট্যাকনিক্যাল ডিরেক্টর হিসেবে। খেলোয়াড়ি জীবনেও প্রায় ২৫ বছর খেলেছেন ক্লাবটির হয়ে। এই ক্লাবের হয়ে খেলেই ইতালিয়ান এই ডিফেন্ডার  নিজেকে নিয়ে গিয়েছিলেন ইতিহাসের সেরাদের কাতারে। মালদিনি পরিবারের তৃতীয় প্রজন্মের সদস্য হয়ে গত মাসেই ইতালির সর্বোচ্চ পর্যায়ের ঘরোয়া ফুটবল আসর সিরি-আ তে অভিষেক হয়েছিল পাওলো মালদিনির ছেলে দানিয়েল মালদিনির।


শেয়ারঃ


এই বিভাগের আরও লেখা